আমরাই তো, চলে যেতে চাই

সাইফ সাজ্জাদ:

আমরাই তো

দক্ষিণের সমুদ্র উত্তাল উত্তর দিকে ঝড়
পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতে হাওয়া লেগে গেছে অদ্ভুত!
পূব-পশ্চিমে প্রবাহিত শুভ্র ফেনা; বয়ে যাচ্ছে রুপালি জলের কনা…
আমরা মিলেছি.আধারের ছায়ায়
কি বসন্ত কি শরত; হৃদয়ের চাওয়ায়, ভাষায়
আমরা এসেছি, মরেছি অনাগত দিনের পথে…
আছে অধিকার, আছে আশা…

আমরাই মিলে যাবো আগামীর দুনিয়ায় মেলার মতই কোন সময়ে-
নানান রকম ভিন্নতায়

পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্রঝড় আমাদের
মিলিয়েছে সবুজ দীপের কাছে কোন এক গ্রামে, হয়ত জন্মদীপ বলি তারে
এখন সময় মূলত মেলার-
মেলানোর, কবিতার!
এখানে হয়তো লিখা হবে গান
দুমড়েমুচড়ে ভেংগে-চুরে নড়ে,

আবারো গাইবো গান হয়ত ভাষার গান
নিবেদনের আর্জির
বন্ধুত্বের
আমরাইতো এভাবে এসেছি; এসেছি পুরাতন পৃথিবীর দেশ থেকে।

চলে যেতে চাই

সেই ফুল! যেটা পাহাড়ে গন্ধ ছড়িয়ে ফুটে থাকে একটি সময় ;যখন রাত্রির ডুমুর ডালে পাখিরা গান থামিয়ে ফেলে
এবং তারাদের সাথেই তারাদের গান বেজে চলে

আকাশপটে পুরাতন সব কিছুকে তখন
ছেদ ঘটিয়ে দিয়ে নিথর মহাকাল
কোন নতুন কিছু-কে সামনে আনে
যা অবিচল

আমাদের এই সম্পর্ক যা অচেনা হয়ে ফেটে যায় চিরদিন মাটির নিচে তা বিনাশ হয়

কিছুই বদলানো যাবে না, কিন্তু পরিবর্তন সবসময় চিরায়িত
তা মানুষ কে জাগিয়ে রাখে সম্ভাবনার পথে

এই বুঝি এলো বাতাস কাঁপিয়ে বিরান উঠানে..
হিজল, জুই আর চামেলী তোমার মতই এমন

হাত ধরে চলে যেতে চাই, কোথাও
চলে যেতে চাই আজানায়।

বিজ্ঞাপন
আগের সংবাদপুত্রের প্রতি, সুশীল কবিতা
পরবর্তি সংবাদউমাইয়া শাসনামলে ক্ষমতার টানাপোড়েন : শাসকের মোকাবেলায় আলেম সমাজ