জ্যাকব জুমার আত্মসমর্পণ, আফ্রিকার নতুন ইতিহাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

অবশেষে কারাদণ্ড ভোগ করতে পুলিশে আত্মসমর্পণ করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমা (৭৯)। জুমা ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে দেশটির জনগণ নতুন এক ইতিহাসের সাক্ষী হলো। কারণ এর আগে দেশটি কোনো সাবেক প্রেসিডেন্টের কারাভোগ দেখেনি। খবর বিবিসির।

বুধবার মধ্যরাতে জুমা পুলিশে আত্মসমর্পন করেন। এর আগে বুধবার সকালে পুলিশের পক্ষ মধ্যরাতের মধ্যে আত্মসমর্পণের আল্টিমেটাম দেওয়া হয়। জ্যাকব জুমা ফাইন্ডেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, কোয়া-জুলু নাটাল প্রদেশে নিজের বাসভবনের কাছেই এক কারাগারে এ দণ্ড ভোগ করতে গিয়েছেন জুমা।

আদালত অবমাননার দায়ে গত ২৯ জুন জুমার ১৫ মাসের কারাদণ্ড হয়। দক্ষিণ আফ্রিকার সর্বোচ্চ আদালতের দেওয়া ওই রায়ে জুমাকে স্বেচ্ছায় পুলিশে ধরা দিতে পাঁচ দিনের সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। গত রোববার রাতে ওই সময়সীমা শেষ হয়। কিন্তু প্রথমে জুমা পুলিশে ধরা দিতে অস্বীকৃতি জানান। তাঁর ভাষ্য, করোনা মহামারির মধ্যে এই বয়সে কারাগারে গেলে তা তাঁকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেবে। পরে পুলিশের পক্ষ থেকে বুধবার মধ্যরাতের মধ্যে জুমাকে আত্মসমর্পণের সময়সীমা দেওয়া হয়েছিল।

ক্ষমতায় থাকাকালেই জুমার বিরুদ্ধে দুর্নীতির বিভিন্ন অভিযোগ ওঠে। এ অভিযোগ তদন্ত করছিলেন দেশটির উপপ্রধান বিচারপতি রেমন্ড জোনডো। গত ফেব্রুয়ারিতে তদন্তের জন্য জুমাকে তলব করা হলেও তিনি হাজির হননি। এ কারণে আদালত অবমাননার দায়ে তাঁকে ১৫ মাস কারাবাসের এই দণ্ড দেওয়া হয়।

আগের সংবাদইভ্যালির বিরুদ্ধে অভিযোগ তদন্ত করতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের চিঠি
পরবর্তি সংবাদখুলনায় একদিনে মৃত্যু ২২