পশ্চিমবঙ্গে চিকিৎসকদের ধর্মঘটে অন্যান্য রাজ্যের চিকিৎসকদের সমর্থন

ফাতেহ ডেস্ক

চতুর্থ দিনে গড়ালো কলকাতার এন আর এস হাসপাতালে চিকিৎসকদের ধর্মঘট-আন্দোলন। বৃহস্পতিবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ধর্মঘট প্রত্যাহারের আলটিমেটাম দিলেও ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কলকাতার চিকিৎসকরা। এদিকে, পশ্চিমবঙ্গের চিকিৎসকদের সাথে একাত্মতা জানিয়ে ধর্মঘট পালন করছে, ব্যাঙ্গালুরু, হায়দ্রাবাদ, দিল্লি ও মুম্বাইয়ের চিকিৎসকরা। ধর্মঘটের কারণে বিভিন্ন হাসপাতালে এরিমধ্যে অন্তত ১৫ রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার রাতে নীলরতন সরকারি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রোগী মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তজনা ছড়ায়। এসময় গুরুতর আহত হয় এক জুনিয়র চিকিৎসক। তার জেরেই মঙ্গলবার ধর্মঘটের ডাক দেয় সিনিয়র চিকিৎসকরা।এই আন্দোলনে আগুনে ঘি ঢালার কাজ করেছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর বক্তব্য। তিনি চিকিৎসকদের আন্দোলনকে বহিরাগতদের আন্দোলন আখ্যা দিয়ে হুমকি দেওয়ায় চটেছেন চিকিৎসকরা। কোথাও গণ ইস্তফা কোথাও বা শুধুমাত্র জরুরি বিভাগ চালিয়ে রেখে আন্দোলন চালাচ্ছেন তারা।

চিকিৎসকদের পাশে দাড়িয়ে মমতা ব্যানার্জির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ তোলেন অপর্ণা সেন, কৌশিক সেন সহ বুদ্ধিজীবিরা। এই সরকারের কাছে কোন পুরস্কার না নেয়ার ঘোষণাও দেন তারা। পশ্চিমবঙ্গের চিকিৎসকদের সাথে একাত্বতা জানিয়ে ধর্মঘট পালন করছে, ব্যাঙ্গালুরু, হায়দ্রাবাদ, দিল্লি ও মুম্বাইয়ের চিকিৎসকরা। চিকিৎসকদের ওপর হামলার বিষয়ে কথা বলতে কেন্দ্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন অল ইন্ডিয়া ইন্সটিটিউট অব মেডিকেল সাইন্সের আবাসিক চিকিৎসকদের সংগঠন। এবিষয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর সঙ্গে যোগাযোগের আশ্বাস দিয়ে চিকিৎসকদের কাজে ফেরার আহ্বান জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

এদিকে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির বিরুদ্ধে চিকিৎসকদের নিরাপত্তার পাশাপাশি ধর্মঘট পরিস্থিতি মোকাবেলায় ব্যর্থতার অভিযোগ তুলেছে বিরোধী শিবির। রাজ্যের বিজেপি ভাইস প্রেসিডেন্ট জয় প্রকাশ মজুমদার স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদ থেকে মমতার পদত্যাগের দাবি তুলেছেন। চিকিৎসকদের এই কর্মবিরতির খেসারত দিচ্ছে রোগি ও তার স্বজনেরা। চিকিৎসা না পেয়ে অনেকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এরমধ্যে ভেন্টেলটনের সুবিধা না পেয়ে কলকাতায় প্রাণ গেছে ৩ দিনের এক শিশুর ।