বাবা-মায়ের সঙ্গে ঈদ করার ভাগ্য হলো না মেহেদীর

ফাতেহ ডেস্ক

বাড়ি ফেরা হলো না। আর বাবা-মায়ের সঙ্গে ঈদ করা হলো না মেহেদী হাসানের (২৮)। মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় পথেই মৃত্যু হয়েছে তার। সঙ্গে থাকা স্ত্রীর অবস্থাও আশঙ্কাজনক। ।

শুক্রবার সকালে নাটোর-পাবনা মহাসড়কের গোধড়া ব্রিজ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মেহেদী হাসান যশোরের শার্শা উপজেলার আমলাই গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে। তিনি টাঙ্গাইলে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন।

বনপাড়া হাইওয়ে থানার ওসি দেলোয়ার হোসেন জানান, সকালে টাঙ্গাইল থেকে মেহেদী হাসান ও তার স্ত্রী মোটরসাইকেলে যশোর যাচ্ছিলেন। পথে গোধড়া এলাকায় অপর একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে তাদের মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে।

এতে চারজন আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে বনপাড়ার একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মেহেদী হাসানকে মৃত ঘোষণা করেন।

অন্যরা বর্তমানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।