বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ প্যাকেজ ঘোষণা করল হাব

ফাতেহ ডেস্ক:

বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীদের জন্য প্যাকেজ ঘোষণা করেছে হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব)। সরকারি ব্যবস্থাপনায় দুটি প্যাকেজ ঘোষণার একদিন পর বৃহস্পতিবার (১২ মে) এই প্যাকেজ ঘোষণা করল সংস্থাটি।

এবার হজের সাধারণ প্যাকেজ মূল্য চার লাখ ৬৩ হাজার ৭৪৪ টাকা নির্ধারণ করেছে হাব। তবে এ প্যাকেজের মধ্যে কোরবানির খরচ অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। এজন্য প্রত্যেক হজযাত্রীকে অতিরিক্ত ১৯ হাজার ৬৮৩ টাকা ব্যয় করতে হবে।

রাজধানীর নয়াপল্টনে হোটেল ভিক্টরিতে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই প্যাকেজ ঘোষণা করেন হাবের সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম।

হাব সভাপতি বলেন, বিমান ভাড়া এক লাখ ৪০ হাজার টাকা, বাড়ি ভাড়া এক লাখ ৫৮ হাজার ৫৬ টাকা, সার্ভিস ও পরিবহন ব্যয় ৪২ হাজার ৬৩৫ টাকা, জমজম পানি ২৯২ টাকা, অন্যান্য সার্ভিস চার্জ ৬২ হাজার ২৩৬ টাকা, লাগেজ পরিবহন ৭২৯ টাকা, ভিসা ফি ৮৩৮৪ টাকা, ইন্সুরেন্স ২৬৭৩ টাকা, স্থানীয় সার্ভিস চার্জ ১০০০ টাকা, ক্যাম্প তহবিল ২০০ টাকা, প্রশিক্ষণ ৩০০ টাকা, খাওয়া ৩২ হাজার টাকা, নিবন্ধন ২০০০ টাকা, মোনাজ্জেম খরচ ৪০০০ টাকা, হজ গাইড খরচ ১০ হাজার ২৩৮ টাকা।

এছাড়াও প্রত্যেককে কোরবানির জন্য ১৯ হাজার ৬৮৩ টাকা অতিরিক্ত হিসেবে নিতে হবে।

তসলিম বলেন, প্যাকেজের টাকা ১৮ মে’র মধ্যে জমা দিতে হবে। এজেন্সির ব্যাংক হিসাব অথবা টাকা জমা দেওয়ার রশিদ গ্রহণ করতে হবে।

হাব সভাপতি বলেন, হজ ফ্লাইট পরিচালনায় ডেডিকেটেড ফ্লাইট পরিচালনা করতে হবে। তা না হলে সব হজযাত্রীর দেশে ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করা সম্ভব হবে না।

এর আগে গতকাল বুধবার (১১ মে) দুপুরে সচিবালয়ে এবারের হজ প্যাকেজ ঘোষণা করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান। এবার দুটি প্যাকেজ ঘোষণা করেছে সরকার। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যেতে সর্বনিম্ন প্যাকেজ চার লাখ ৬২ হাজার ৫৩০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যেতে সর্বনিম্ন খরচ হবে পাঁচ লাখ ২৭ হাজার ৩৪০ টাকা।

 

আগের সংবাদ২০২৩ সালে সব বিষয়ে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা
পরবর্তি সংবাদআমিরাতের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে আজ বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় শোক