সিরিয়া পুনর্গঠনের বিনিময়ে ফারসি ভাষাকে শিক্ষাব্যবস্থায় অন্তর্ভুক্তির দাবি ইরানের

সিরিয়া পূনর্গঠনের বিনিময়ে ফারসি ভাষাকে শিক্ষাব্যবস্থায় অন্তর্ভূক্তির দাবি ইরানের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ইরান ইতোপূর্বেও সিরিয়ার বিভিন্ন স্কুল মেরামত করেছে। কিন্তু এবার আলেপ্পো ও লাতাকিয়ার বিভিন্ন স্কুল মেরামতের বিনিময়ে পাঠ্যব্যবস্থায় ফারসি অন্তর্ভুক্তির দাবি জানিয়েছে ইরান। আল আরাবিয়্যাহ ও আলাজাজিরা

আল আরাবিয়্যাহ তাদের ২৯ জানুয়ারীর প্রতিবেদনে জানায়, রাশিয়া যেভাবে সিরিয়ার শিক্ষাব্যবস্থায় রুশভাষার আধিপত্য বিস্তার করেছে, অনুরূপ ইরানও সিরিয়ার সামরিক একাডেমীতে ইরানী ভাষাশিক্ষাদানের পাশাপাশি দিমাশক ও লাতাকিয়াসহ বিভিন্ন এলাকয় ফারসি ভাষাশিক্ষাকেন্দ্র খুলে শিক্ষাদান অব্যাহত রেখেছে।

অন্যদিকে ইরানের এই পদক্ষেপ ইরানী জনগণ ভালভাবে দেখছে না। যেখানে অর্থাভাবে ইরানের বিভিন্ন স্কুল সংস্কার করা সম্ভব হচ্ছে না, সেখানে সরকার সিরিয়ার বিভিন্ন স্কুল মেরামতের জন্য ফারসি ভাষাকে শর্তারোপ করছে।

উল্লেখ্য, সিরিয়ায় ফরাসি ও ইংরেজী ভাষাকে দ্বিতীয় ভাষা হিসেবে স্বীকৃত। চার বছর আগে রাশিয়াকে দ্বিতীয় ভাষার স্থান দেয়ার পর এবার ফারসিকেও দ্বিতীয় ভাষার স্থান দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

 

বিজ্ঞাপন
আগের সংবাদআমেরিকায় কুরআন ছুঁয়ে পুলিশ প্রধানের শপথগ্রহণ
পরবর্তি সংবাদভাষা আন্দোলনের খণ্ডচিত্র : ইসলামপন্থীদের ভূমিকা