সৌদিতে আটক ফিলিস্তিনীদের মুক্তির জন্য সৌদি ও হামাসের আলোচনা

 আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সৌদি আরবে কথিত সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে আটক ফিলিস্তিনীদের মুক্তির জন্য সৌদির সাথে আলোচনা শুরু করেছে হামাস।

আনাদুলু এজেন্সিকে দেয়া সাক্ষাতকারে হামাসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বাসিম নাইম বলেন, এপ্রিলের শেষ দিকে রমজানের আগেই হামাস এই বিষয়টি সম্পন্ন করতে চায়।

৬২ ফিলিস্তিনীকে ”বিভিন্ন সন্ত্রাসী দলকে” সমর্থনের অভিযোগে সৌদির আটককে দুঃখজনক মন্তব্য করে হামাস নেতা বলেন, আটক ফিলিস্তিনীরা সৌদিতে দীর্ঘদিন বসবাস করছেন। সৌদি আরবে তাদের ইতিবাচক ভূমিকা রয়েছে।

হামাস নেতা বলেন, “আটক ব্যক্তিদের দ্বারা সৌদির জাতীয় স্বার্থ কোনভাবে ক্ষুন্ন হয়নি। বরং আটককৃতদের কয়েকজন বেশ হাইপ্রোফাইল। সৌদি কর্তৃপক্ষের সাথে যারা বিভিন্ন ইস্যুতে সরাসরি সম্পর্ক রাখতেন।

বাসিম বলেন, সৌদির সাথে  হামাসের সবচে দৃশ্যমান যে দ্বিমত, সেটি হলো, আমেরিকার কথিত শান্তিপরিকল্পনা নামক সেঞ্চুরি ডিলের পক্ষে সৌদির অবস্থান। যে চুক্তির মূল উদ্যেশই হলো ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করা। এবং সৌদিতে হামাস নেতাদের গ্রেফতার এই চুক্তি অনুমোদনের নামান্তর।

হামাস সরাসরি কিংবা মধ্যস্থতাকারীদে মাধ্যমে সৌদির সাথে আলোচনা চালাচ্ছে বলে জানান তিনি।

হামাস নেতা মন্তব্য করেন, তার সংগঠন কোন দেশের অভ্যন্তরীন কিংবা বৈদেশিক ইস্যুর অংশ হতে পারে না। এবং হামাস কারো অভ্যন্তরীন বিষয়ে হস্তক্ষেপও করে না বলে দাবী করেন বাসিম।

ফিলিস্তিনীদের সহযোগিতায় সৌদি আরবের দীর্ঘ ইতিহাসের কথা উল্লেখ করে দখলদারের বিরুদ্ধে সামরিকসহ সকল প্রকার প্রতিরোধ আন্দোলনে সমর্থনের জন্য সৌদির প্রতি বাসিম আহবান জানান।