আত্মঘাতি হামলার পর ইন্দোনেশিয়ার কঠিন সন্ত্রাস বিরোধী আইন পাস

ফাতেহ ডেস্ক: সন্দেজনক সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পুলিশ বাহিনীকে আরো বেশী ক্ষমতা প্রদান করে কঠোর সন্ত্রাস বিরোধী আইন পাস করেছে ইন্দোনেশিয়া।

গত এক বছর ধরে চলমান ইসলামী জঙ্গি গোষ্ঠীর হামলার কারণ শনিবার দেশটি এই আইন পাশ করে।
খবর এএফপি’র।

গত দুই বছর ধরে আইনটি সংসদে পেশকৃত ছিলো। সে সময় চলে বিলের বিস্তারিত বিষয় নিয়ে আলোচনা। কিন্তু চলতি বছর ক্রমাগত জঙ্গি হামলার কারনে পেশকৃত বিলটি দ্রুত পাস করার উদ্যোগ গ্রহন করা হয়।

নতুন সন্ত্রাস বিরোধী আইনে পুলিশ সন্দেহভাজন যে কোন ব্যক্তিকে বিনা পরোয়ানায় এক সপ্তাহ থেকে ২১ দিন পর্যন্ত আটক রাখতে পারবে। সেই সাথে সন্ত্রাসী সংগঠনের জন্য সদস্য সংগ্রহ করলে বা যোগদান করলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করতে পারবে।

দেশটির মানবাধিকার সংগঠনগুলো নতুন আইনের বিরোধিতা করে বলেছে, আইনের কতিপয় বক্তব্যের অস্পটতার কারনে যে কোন গ্রুপ বা জনগন হয়রানীর শিকার হবেন।

চলতি মাসে দেশটির গির্জা ও পুলিশ স্টেশনে আত্মঘাতি জঙ্গি হামলায় ১৩ জন নিহত হয়েছে।

দেশটির দ্বিতীয় প্রধান শহর সুরাবাহতে সংগটিত এই হামলায় দুটি পরিবারের সদস্যরা জড়িত। জড়িতদের মধ্যে ১২ বছর এক মেয়ে শিশুও রয়েছে।

দেশটি আগামীতে এশিয়ান গেমসের আসর বসবে। এছাড়া আগামী অক্টোবর মাসে দেশটিতে আইএমএফ-বিশ্বব্যাংক সভাকে সামনে রেখে ইসলামী জঙ্গি গোষ্ঠীর হুমকি মোকাবেলা করতে হবে।

বিজ্ঞাপন
আগের সংবাদইবি’র ফাযিল পরীক্ষার ফল প্রকাশ
পরবর্তি সংবাদভারতীয় বিনিয়োগকে বাংলাদেশ স্বাগত জানায় : প্রধানমন্ত্রী