ইজরাইলে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বাতিল করল বাংলাদেশ: জেরুজালেম পোস্ট

ফাতেহ ডেস্ক:

বাংলাদেশের নতুন পাসপোর্টে ইজরাইল ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা বাতিলের খবর দিয়েছে ইজরাইলি সংবাদমাধ্যম জেরুজালেম পোস্ট। এ ঘটনাকে স্বাগত জানিয়েছে ইজরাইল। শনিবার রাতে টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে এ ঘটনাকে স্বাগত জানান দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের উপ-মহাপরিচালক গিলাড কোহেন।

টুইটে গিলাড কোহেন লিখেছেন, ‘বড় খবর! বাংলাদেশ ইজরাইলের ওপর থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে। এটি একটি ইতিবাচক পদক্ষেপ। আমি বাংলাদেশ সরকারকে ইজরাইলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানাই যাতে আমাদের উভয় দেশের জনগণ উপকৃত ও সমৃদ্ধ হতে পারে।

টুইটে এ সংক্রান্ত একটি নিউজের লিংক শেয়ার করেছেন গিলাড কোহেন। ওই নিউজে পাশাপাশি দুই ছবিতে বাংলাদেশের নতুন ও পুরাতন দুইটি পাসপোর্টের ছবি দেওয়া হয়েছে। প্রথমটিতে লেখা রয়েছে, ইজরাইল ছাড়া দুনিয়ার সব দেশের জন্য বৈধ পাসপোর্ট। দ্বিতীয়টিতে লেখা দুনিয়ার সব দেশের জন্য বৈধ পাসপোর্ট। অর্থাৎ, দৃশ্যত নতুন পাসপোর্টটিতে ‘ইজরাইল ছাড়া’ কথাটি উল্লেখ নেই।

ইজরাইলের সঙ্গে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের আনুষ্ঠানিক কোনও কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই। তবে জেরুজালেম পোস্ট জানিয়েছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বাংলাদেশ-ভিত্তিক সাপ্তাহিক ব্লিটজকে নতুন পাসপোর্টের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ব্লিটজের বরাত দিয়ে জেরুজালেম পোস্ট লিখেছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, নতুন জারি করা পাসপোর্টের ফলে বাংলাদেশের নাগরিকদের বৈধভাবে ইজরাইল ভ্রমণের সম্ভাবনা উন্মোচিত হবে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অতীতে যেসব বাংলাদেশি নাগরিক ইসরায়েল ভ্রমণ করেছে বা দেশটিতে ভ্রমণের চেষ্টা করেছে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হয়েছে কিংবা ফের বাংলাদেশের মাটিতে পা রাখলে পরিণতি বরণের মতো হুমকি দেওয়া হয়েছিল।

13

এক্ষেত্রে সাপ্তাহিক ব্লিটজ সম্পাদক সালাহ চৌধুরীর কথা উল্লেখ করেছে জেরুজালেম পোস্ট। প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০০৩ সালে ইজরাইলের রাজধানী তেল আবিবে লেখকদের এক সম্মেলনে অংশ নিতে চেয়েছিলেন সালাহ। পরে তাকে কারাগারে যেতে হয় এবং তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মতো অভিযোগ আনা হয়।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ট্রাম্প প্রশাসনের মধ্যস্থতায় গত বছর ইজরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করে বেশ কয়েকটি মুসলিম দেশ। এর মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন, মরক্কো ও সুদানের মতো দেশগুলো রয়েছে। সৌদি আরবও ইজরাইলকে স্বীকৃতি দেবে বলে জানিয়েছিলেন ট্রাম্প। তবে গত মার্কিন নির্বাচনে ট্রাম্পের পরাজয়ের পর আর এর অগ্রগতি সম্পর্কে বেশি কিছু জানা যায়নি।

 

আগের সংবাদপল্লবী হত্যাকাণ্ড: এবার আরেক আসামী ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত
পরবর্তি সংবাদআসছে ঘূর্ণিঝড় যশ, সর্তক থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর