ওঅাইসির ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে একাত্বতা ঘোষণা

ফাতেহ ডেস্ক:নিরস্ত্র ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি হত্যাকাণ্ডের কঠোর নিন্দা জানিয়ে অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশন (ওআইসি) এর শীর্ষ সম্মেলন শেষ হয়েছে।

আনদুলু এজেন্সির বরাতে জানা যায়, তুরস্কের রাষ্ট্রপতি রজব তাইয়্যেব এরদোগানের আহবানে অনুষ্ঠিত ওআইসি এই ইসলামি সহায়তা সংস্থার সাধারণ সভার অধিবেশন শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে একাত্বতা ঘোষণা করে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়।

বিবৃতিতে বলা হয় ওআইসি কোনোভাবেই যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত মেনে নিবে না।

ওআইসি মহাসচিব ইউসুফ আল উসাইমিন ও ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রী রামি আল হামদুল্লাহর সঙ্গে এক যৌথ বিবৃতিতে এরদোগান বলেন, ফিলিস্তিনি জনগণের সাথে একাত্মতা প্রকাশের পাশাপাশি ইসরায়েলের জন্য প্রয়োজনীয় সতর্কবার্তা পৌঁছে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ওআইসি।

তারা আরো বলেন, গাজায় নিসংশ গণহত্যা চালানো হচ্ছে। এ গণহত্যা বন্ধ করে শান্তির পথে আসতে হবে। না হয় পরিণতি ভালো হবে না। ওয়াশিংটনের সমালোচনা করে এরদোগান বলেন, শান্তিপূর্ণ অবস্থান নষ্ট করতে ও ইসলামি দেশগুলোর ঐক্য নষ্ট করতে মূলত ট্রাম্প এ উত্তেজনাকর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমরা এর নিন্দা জানাই।

তিনি আরো বলেন, বারবার সতর্কবার্তা সত্ত্বেও তেল আবিব থেকে দূতাবাস স্থানান্তর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এ বেআইনি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে না।

আমরা ফিলিস্তিনি জনগণের সাথে আমাদের বন্ধুত্ব কখনো শেষ করব না। তারা আমাদের ভাই।

এরদোগান আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের বিশেষ করে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি আহ্বান জানান তারা যেনো এ হিংস্রতার বিরুদ্ধে এগিয়ে আসেন।

ওআইসি’র মহাসচিব ইউসুফ আল উসাইমিন সমাপনি ভাষণে বলেন, আমরা ফিলিস্তিনি জনগণের জন্য আন্তর্জাতিক সুরক্ষা প্রদানের প্রয়োজন পুনর্ব্যক্ত করেছি। দৃষ্টি আকর্ষণ করছি মানবাধিকার সংস্থাগুলোর প্রতি।

এই বিষয়ে ওআইসি কী পদক্ষেপ নেবে সে সম্পর্কে তিনি বলেন, আমরা ফিলিস্তিনি অঞ্চলে ইসরায়েলি অপরাধের তদন্তের জন্য আন্তর্জাতিক কমিশনের বিশেষজ্ঞ হিসেবে ওআইসি’র সচিবালয় জেনারেলকে নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রী রামি হামদুল্লাহ তার বক্তব্যে বলেন, ফিলিস্তিনি দখলকৃত অঞ্চলগুলিতে ইসরায়েলিদের নির্যাতন আর অপরাধের একটি আন্তর্জাতিক ও স্বচ্ছ তদন্তের আহ্বান জানাই আমরা।

আন্তর্জাতিকভাবে সব মুসলিম দেশ যদি এগিয়ে আসে ফিলিস্তিন রক্ষা পাবে বলে মন্তব্য করেন হামদুল্লাহ।

বিজ্ঞাপন
আগের সংবাদরোজার নিয়ত ও সাহরি-ইফতারের দোয়া
পরবর্তি সংবাদযেমন কাটছে রোহিঙ্গা মুসলিমদের রোজা