তাইওয়ানে সামরিক অভিযানের ঘোষণা চীনের

আন্তর্জাতিক ডেস্কত:

তাইওয়ানকে ঘিরে যেকোনও সময় ‘সুনির্দিষ্ট সামরিক অভিযান’ শুরু করার ঘোষণা দিয়েছে চীন। মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরের জেরেই এমন পদক্ষেপ নিয়েছে দেশটির সামরিক বাহিনী। মঙ্গলবার (২ আগস্ট) এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি।

চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র উইউ কিয়ান বলেন, চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে, তারা সামরিক অভিযানের জন্য সম্পূর্ণ প্রস্তুত। আমরা তাইওয়ানের বিভিন্ন স্থাপনা লক্ষ্য করে অভিযান চালাবো। চীনের সার্বভৌমত্ব ও ভৌগলিক অখণ্ডতা, তাইওয়ানের বিচ্ছিন্নতাবাদীদের দমন ও তাইওয়ানের স্বাধীনতার নামে নিজেদের অভ্যন্তরীণ ইস্যুতে বাইরের শক্তির বাড়াবাড়ির জবাব হিসেবে পরিচালিত হবে এ অভিযান।’

চীনের তরফে দেওয়া হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে এদিন তাইওয়ানে পৌঁছান ন্যান্সি পেলোসি। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাত ১০টা ৪৪ মিনিটে তাকে বহনকারী বিশেষ উড়োজাহাজ রাজধানী তাইপে অবতরণ করে। একই সময়ে তাইওয়ান উপত্যকা ও পূর্ব উপকূলের আকাশসীমা বন্ধ করে দেয় চীন।

তাইওয়ানকে নিজেদের অংশ বিবেচনা করা বেইজিং এই সফরের ‘মারাত্মক পরিণতির’ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে। চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন,‘যুক্তরাষ্ট্র উসকানিমূলক পদক্ষেপ নিচ্ছে, যা তাইওয়ান প্রণালিজুড়ে উত্তেজনা বাড়াতে পারে। তাদের অবশ্যই এর সম্পূর্ণ দায় নিতে হবে।

আগের সংবাদআল-কায়েদার শীর্ষ নেতা জাওয়াহিরি: আসলেই কি নিহত হয়েছেন?
পরবর্তি সংবাদদেশে কাদিয়ানিদের সংখ্যা কত?