তুরস্কের বিপ অ্যাপে যোগদানের হিড়িক, হোয়াটসঅ্যাপকে গুডবাই

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

বিশ্বব্যাপী তুমুল আলোড়ন সৃষ্টিকারী তুরস্কের অ্যাপ বিআইপিতে যোগদানের হিড়িক চলছে। আমেরিকান প্রতিষ্ঠান হোয়াটসঅ্যাপ নিজেদের প্রাইভেসি পলিসিতে বিতর্কিত পরিবর্তন আনার পর থেকেই তুরস্কের এই অ্যাপে প্রতিদিন প্রায় ২০ লাখ করে ব্যবহারকারী বাড়ছে। খবর ডেইলি সাবাহ।

অ্যাপটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান তুরস্কের বৃহত্তম রাষ্ট্রীয় টেলিকম সংস্থা ‘তুর্কসেল’।

২০১৩ সালের নভেম্বরে প্রথম চালু হওয়ার পরে গত ৭ বছরে সাড়ে চার কোটি গ্রাহক ডাউনলোড করেছে অ্যাপটি। আর গত কয়েক সপ্তাহে ডাউনলোড হয়েছে প্রায় এক কোটি। ২০১৫ সালের নভেম্বর পর্যন্ত ১৬৬ দেশ থেকে এই অ্যাপটি ডাউনলোড করেছে মত ২৬ লাখ লোক। ২০১৭ সালে মোট ব্যবহারকারী হয় ১ কোটি ৮০ লাখ।

২০১৮ সালের নভেম্বরে এই সংখ্যা পৌঁছে ৩ কোটি ৪০ লাখে্ ২০১৯ সালে তুরস্কের সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত আপগুলোর মধ্যে এক নম্বরে ছিল হোয়াটসঅ্যাপ আর ২০ নম্বরে ছিল বিপ । সে বছর সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তুরস্কে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতো ৪ কোটি ৩৫ লাখ লোক।

২০২০ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত সারা বিশ্বে বিপ ব্যবহারকারী সংখ্যা ছিল ৪ কোটি ৫০লাখ। আর ২০২১ এর জানুয়ারিতে এসে বিশ্বের ১৯৬ দেশে বিপ ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৬ কোটি ছাড়িয়েছে।

তুর্কসেলের মহাব্যবস্থাপক জানান, গত শুক্রবার থেকে ৬৪ লাখ ব্যবহারকারী হোয়াটঅ্যাপস ছেড়ে বিআইপিতে যোগদান করেছেন। বর্তমান পরিবেশে বিআইপি নিরাপদ স্থান হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। আমরা টেলিগ্রামের সাথে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে চলেছি।

উল্লেখ্য, অপারেটিং সিস্টেমের স্মার্টফোনের মেসেঞ্জারে চ্যাটসহ ছবি আদান-প্রদান, ভিডিও ও অডিও মিডিয়া বার্তাও আদান-প্রদান করা যায় বিআইপিতে। বর্তমানে এই অ্যাপে পাঁচ কোটির বেশি ব্যবহারকারী রয়েছে বিশ্বব্যাপী।

 

বিজ্ঞাপন