দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড আক্রান্ত, মৃত্যু ২০

ফাতেহ ডেস্ক

দেশে চব্বিশ ঘণ্টায় রেকর্ড ১ হাজার ৮৭৩ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এই সময়ে মৃত্যু হয়েছে ২০ জনের।

বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত প্রথম রোগীর খোঁজ মেলার পর শনিবার পর্যন্ত মোট আক্রান্ত দাঁড়িয়েছে ৩২ হাজার ৭৮ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৪৫২ জনের। চব্বিশ ঘণ্টায় ২৯৬ জনসহ মোট সুস্থ হয়েছেন ৬ হাজার ৪৮৬ জন।

দেশে কভিড-১৯ রোগী শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ২০.২২ শতাংশ; মৃত্যুর হার ১.৪১ শতাংশ।

এর আগে দেশে একদিনে করনোয় শনাক্তের রেকর্ড ছিল ১,৭৭৩ জন, ২১ মে। মৃত্যুর রেকর্ডটি হয়েছে ২২ মে, ২৪ জন।

দেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে শুক্রবার দুপুরে এসব হালনাগাদ তথ্য তুলে ধরেন অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

একদিনে মৃত্যুবরণ করা ২০ জনের ১৬ জন পুরুষ, চারজন নারী। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগের চারজন, চট্টগ্রাম বিভাগে আটজন, রংপুর বিভাগে দুজন, ময়মনসিংহ বিভাগে দুজন, রাজশাহী বিভাগে দুজন, সিলেট বিভাগে একজন এবং খুলনা বিভাগে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

বয়স বিশ্লেষণে ২১-৩০ বছরের মধ্যে দুজন, ৩১-৪০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৪১-৫০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৫১-৬০ বছরের মধ্যে আটজন, ৬১-৭০ বছরের মধ্যে তিনজন এবং ৭১-৮০ বছরের মধ্যে একজন।

তাদের মধ্যে ১৫ জন হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন, চারজন বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেছেন এবং একজনকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে।

বুলেটিনে বলা হয়, চব্বিশ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৯ হাজার ৯৭৭টি; আগের দিনের নমুনাসহ মোট পরীক্ষা করা হয়েছে ১০ হাজার ৮৩৪টি নমুনা।

চব্বিশ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে ২৮৬ জনকে; ছাড় পেয়েছেন ৪১ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৪ হাজার ৩০৫ জন।

কোয়ারেন্টাইনে নেওয়া হয়েছে ২ হাজার ৩২২ জনকে। ছাড় পেয়েছেন ২ হাজার ৮৮ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৫৫ জন ১৫১ জন।

-এ