রাজধানীতে মা-বাবা-মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যা

ফাতেহ ডেস্ক :

রাজধানীর কদমতলীতে একই পরিবারের তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এছাড়া আরও দুজনকে অচেতন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মুরাদপুর এলাকা থেকে শুক্রবার সকালে লাশগুলো উদ্ধার করা হয়।

কদমতলী থানার ওসি মীর জামাল উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন, মাসুদ রানা (৫০), তার স্ত্রী মৌসুমী ইসলাম (৪০) ও মেয়ে জান্নাতুল (২০)।

হত্যাকারী সন্দেহে এই পরিবারের বড় মেয়ে মেহজাবিনকে আটক করেছে পুলিশ। মেহজাবিনের স্বামী শফিকুল ইসলাম (৪০) ও মেয়ে মারজান তাবাসসুম তৃপ্তিয়া (৬) ঢামেকে চিকিৎিসাধীন আছেন।

হাসপাতালে শফিকুল গণমাধ্যমকে বলেন, রাতে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে এসেছিলাম। খাবার ও চা খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ি। আমার মেয়েও অচেতন হয়ে যায়।

পুলিশের ধারণা, শুক্রবার রাতে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে তিনজনকে গলায় ফাঁস দিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে।

ওসি জামাল উদ্দিন বলেন, ‘আমরা মরদেহগুলো হাত পা বাঁধা অবস্থায় পেয়েছি। গতকালকে রাতে তাদের হত্যা করা হয়েছে। হত্যা করেছে তাদেরই আরেক মেয়ে। সেই মেয়েকে আটক করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ঘটনাস্থলে আমাদের টিম রয়েছে। তারা এলে এ বিষয়ে বিস্তারিত বলা যাবে।

 

বিজ্ঞাপন
আগের সংবাদসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপরাধ বেড়েই চলেছে: গবেষণা
পরবর্তি সংবাদজানাযার খবর জানাতে ফ্রি মাইক সার্ভিস দিবে ‘অভিযাত্রী’