হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় তরুণরা বেশি অনুপ্রাণিত হবে : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

ফাতেহ ডেস্ক:

ওআইসি ইউথ ক্যাপিটাল ঢাকা ২০২০ উপলক্ষ্যে আয়োজিত পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগীতার বাংলাদেশ অঞ্চলের চূড়ান্ত প্রতিযোগীতা সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুরে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মোকাররম মিলনায়তনে চূড়ান্ত প্রতিযোগীতার মাধ্যমে বাংলাদেশ অঞ্চলের শ্রেষ্ঠ প্রতিযোগী নির্বাচন করা হয়।

অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান এমপি বলেন, এই প্রতিযোগিতা আয়োজনের মাধ্যমে ইসলামের সুমহান শিক্ষা অর্জনে তরুণ সমাজ সবচেয়ে বেশি অনুপ্রাণিত হবে। আশা করি এই আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিযোগীরা অংশগ্রহণ করে বরাবরের মতই শীর্ষস্থান অধিকার করে দেশের জন্য সম্মান বয়ে আনবে।

প্রতিযোগীতায় ১ম স্থান অধিকার করেছেন ঢাকা বিভাগের প্রতিযোগী মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান, ২য় স্থান অধিকার করেছেন ঢাকা বিভাগের প্রতিযোগী মাসউদ রিদওয়ান ও ৩য় স্থান অধিকার করেছেন খুলনা বিভাগের প্রতিযোগী আমানউল্লাহ আল কাফি।

অনুষ্ঠানে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. নূরুল ইসলাম, অতিরিক্ত সচিব মো. আলতাফ হোসেন চৌধুরী, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক ড. মো. মুশফিকুর রহমানসহ বিশিষ্ট ওলামায়ে কেরাম ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতা জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দুটি পর্যায়ে এশিয়া, আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্য, আমেরিকা, ইউরোপ, ওশেনিয়া এবং বাংলাদেশ এই ৬ টি অঞ্চলের সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ছয়টি দেশ থেকে আঞ্চলিক পর্যায়ে ৩ জন করে নির্বাচিত চূড়ান্ত প্রতযোগি নিয়ে মাট ১৮ জন প্রতিযোগী আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অংশ নিবেন। তাদের মধ্য থেকে চূড়ান্তভাবে তিনজনকে বিজয়ী ঘোষণা করা হবে। আইসিওয়াইএফ সচিবালয় এবং ইসলামিক ফাউন্ডেশন এই বাছাই প্রক্রিয়াটি সংহত করার জন্য একটি জুরি বোর্ড গঠন করা হয়েছে। আঞ্চলিক প্রতিযোগিতাটি পরিচালনা করবে আইসিওয়াইএফ। স্বাগতিক দেশ হিসেবে বাংলাদেশের প্রতিযোগিতাটি ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও ইসলামিক ফাউন্ডেশন পরিচালনা করছে।

বিজ্ঞাপন
আগের সংবাদমসজিদুল হারামের প্রবীণ মুয়াজ্জিন শায়খ আব্দুর রহমানের ইন্তেকাল
পরবর্তি সংবাদকরোনায় মৃত্যু ৩৩ লাখ ছাড়াল