ইজতেমার মাঠে সন্ত্রাসী হামলায় অভিযুক্তদের বিচার ও কাকরাইল থেকে বহিষ্কারের দাবি জানালো বেফাক

ফাতেহ ডেস্ক :  টঙ্গীর ইজতেমার মাঠে তাবলীগের সাথী, মুসল্লি ও মাদরাসার ছাত্রসহ আলেমদের ওপর সংঘটিত সন্ত্রাসী হামলায় অভিযুক্তদের বিচার ও কাকরাইল থেকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড বেফাক।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় যাত্রাবাড়ির কাজলায় অবস্থিত বেফাক অফিসে নৃশংসতম এই হামলার প্রতিবাদে এ জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় হামলার উসকানিদাতাদের গ্রেফতারসহ বিচার দাবি করেন উলামায়ে কেরাম।

বৈঠকে গুরুত্বপূর্ণ দুটি সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এগুলো হলো, কাকরাইল মারকাজ থেকে দ্রুত সময়ের মধ্যে ইজতেমার মাঠে হামলায় অভিযুক্ত সাদপন্থী সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম, শাহাবুদ্দীন নাসিম, মাওলানা আশরাফ ও ইনুস শিকদারকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা এবং ইজতেমায় সন্ত্রাসী হামলার হুকুমদাতা হিসেবে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা।

এছাড়াও আগামী মঙ্গলবার হাটহাজারী মাদরাসায় একটি বৈঠকের সিদ্ধান্ত হয়, সেখানে বেফাকের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দসহ শীর্ষ উলামায়ে কেরাম উপস্থিত থাকবেন।

সভায় আগামীকাল শুক্রবার সারাদেশব্যাপী বিক্ষোভ মিছিল এবং মসজিদে মসজিদে জুমার বয়ানে ইজতেমার হামলার প্রতিবাদ ও নিন্দাজ্ঞাপনসহ ও মাওলানা সাদের ভ্রান্তিসমূহ নিয়ে আলোচনার কথাও বলা হয়।

বেফাকের সিনিয়র সহ-সভাপতি আল্লামা আশরাফ আলী সভার সভাপতিত্ব করেন।

সভায় উপস্থিত ছিলেন, বেফাকের সহসভাপতি আল্লামা সাজিদুর রহমান, আল্লামা আবদুল হামিদ, মাওলানা আনাস মাদানী, মাওলানা বাহাউদ্দিন যাকারিয়া, মহাসচিব, মাওলানা আবদুল কুদ্দুস, সহকারী মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক, মুফতি নুরুল আমিন প্রমুখ।

এছাড়াও তাবলীগের জামাতের শুরা সদস্য কাকরাইলের মুরুব্বি মাওলানা রবিউল হক, মাওলানা ওমর ফরুক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।