বাড়ছে ডেঙ্গুর ঝুঁকি, সাবধানতা প্রয়োজন

ফাতেহ ডেস্ক : দেশে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্তের সংখ্যা এ বছর ছয় হাজার ছাড়িয়ে গেছে, যা গেল ১৬ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ, বলছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তাদের হিসাব, চলতি মৌসুমে ১৬ ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হয়েছে, এর ৯ জনই শিশু।

আর ডেঙ্গুর প্রকোপ এখন রাজধানী ছাড়িয়ে বিস্তৃত হচ্ছে দেশের অন্য জেলায়ও। এ কারণে ডেঙ্গু নিয়ে শঙ্কা বাড়ছে জনমনেও।

ছয়দিন ধরে ঢাকা শিশু হাসপাতালের আইসিইউতে ডেঙ্গুর সাথে লড়ছে পাঁচ বছরের শিশু মরিয়ম। সে হেমোরেজিক ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত।

দ্বিতীয় দফায় আক্রান্ত হওয়ায়, মৃত্যুঝুঁকিও বেড়ে গেছে মরিয়মের। শরীরে পানি জমা, ফুলে যাওয়াসহ ঝুঁকিপূর্ণ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে তার পাশের বিছানাতেই কাতরাচ্ছে দুই বছরের শিশু রাফি।

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ছয় মাস বয়সী শিশু আরদিয়াকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জ থেকে এসেছে তার পরিবার। শিশু হাসপাতালের পরিচালক জানান, এ বছর দু’মাস বয়সী শিশুদেরও আক্রান্ত হতে দেখা গেছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, এ বছর ডেঙ্গুতে এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১৬ জনের, যার মধ্যে নয়জনই শিশু। আক্রান্ত ৬ হাজার ১৫৮ জন। এর আগে, ২০০২ সালে সর্ব্বোচ্চ ৬ হাজার ২৩২ জন আক্রান্ত হয়েছিল। প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।

চার ধরনের ডেঙ্গুর মধ্যে এ বছরই প্রথম টাইপ থ্রি তে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। এই ধরনটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। এ বছর বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারত, চিনসহ এশিয়ার অন্যান্য দেশেও ডেঙ্গু আক্রান্তের হার বেড়েছে।