৩ মাসে খেলাপি ঋণ বেড়েছে ১০ হাজার কোটি টাকা

ফাতেহ ডেস্ক: এবার অবলোপন বাদেই এক লাখ কোটি টাকায় পৌঁছেছে খেলাপি ঋণ। বাংলাদেশ ব্যাংকের সবশেষ হিসাবে, সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তিন মাসেই বেড়েছে ১০ হাজার কোটি টাকা। এতে উদ্বেগ জানিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলছে, ঋণ আদায় জোরদারে নিয়মিত চাপ দেয়া হচ্ছে ব্যাংকগুলোকে।

নানা উদ্যোগের পরও খেলাপি ঋণের লাগাম টানা যাচ্ছে না। এর উর্ধ্বগতিতে দেশের ব্যাংকিং খাত নাজুক বলে জানাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ক্রেডিট রেটিং এজেন্সি মুডি’স।

গত ডিসেম্বর শেষে খেলাপি ঋণ ছিল ৭৪ হাজার কোটি টাকা, মার্চে তা বেড়ে হয় প্রায় ৮৪ হাজার কোটি, পরের প্রান্তিকে এর আকার দাঁড়ায় ৮৯ হাজার কোটি টাকা। সবশেষ গত সেপ্টেম্বরে অবলোপন বাদেই এ মন্দ ঋণ এক লাখ কোটি টাকায় পৌঁছেছে। তবে, অবলোপনসহ এ ঋণের পরিমাণ আড়াই লাখ কোটি টাকার কাছাকাছি।

ব্যাংকাররা বলছেন, ঋণ নিয়ে পরিশোধ না করার প্রবণতা বাড়ছে। আর এতে এক দিকে বাড়ছে খেলাপি ঋণ, বিপরীতে কমছে আদায়।

তবে ডিসেম্বরের শেষে খেলাপি ঋণ কমে আসবে বলে আশা বাংলাদেশ ব্যাংকের। ঋণ আদায় নিয়মিত করতে তদারকি জোরদার হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর খেলাপি ঋণ সবচেয়ে বেশি, ৪৮ হাজার কোটি টাকা। যা ব্যাংকগুলোর মোট ঋণের প্রায় ২৩ শতাংশ।