খুলনার সরকারি কলেজে মুসলিম শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায়

ফাতেহ ডেস্ক:

সরকারি কলেজে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির ক্ষেত্রে মুসলমান শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে আদায় করা হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা। অন্য দিকে ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করেই অমুসলিম শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে নেয়া হচ্ছে কম টাকা। খবর নয়াদিগন্ত।

খবরে বলা হয়েছে, খুলনার সরকারি সুন্দরবন আদর্শ কলেজে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির ক্ষেত্রে বিজ্ঞপ্তিতেই অমুসলিমদের তুলনায় মুসলিম শিক্ষার্থীদের কাছে অতিরিক্ত ৫০ টাকা নেয়া হচ্ছে।

ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ভর্তির জন্য মুসলিম শিক্ষার্থীদের ব্যাংকের মাধ্যমে জমা দিতে হবে ২৭৮০ টাকা। অন্য দিকে অমুসলিম শিক্ষার্থীদের জমা দিতে হবে ৫০ টাকা কম অর্থাৎ ২৭৩০ টাকা। সেখানে দুই ধর্মের শিক্ষার্থীদের টাকা কম-বেশির বিষয়ে আর কোনো ব্যাখ্যা দেয়া হয়নি।

পত্রিকাটির খুলনা ব্যুরো প্রধান এরশাদ আলীর বরাতে খবরে আরও বলা হয়েছে, খুলনায় শুধু সরকারি সুন্দরবন আদর্শ কলেজই নয়, এর বাইরে খুলনার সরকারি সিটি কলেজেও মুসলিম শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে অমুসলিম শিক্ষার্থীদের তুলনায় ৫০ টাকা বেশি আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে অভিভাবকদের মধ্যেও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

সরকারি কলেজগুলোতে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির জন্য মুসলিম এবং অমুসলিম শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে ভর্তি ফি হিসেবে টাকা কম-বেশি আদায় করার বিষয়ে ঢাকা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ জানান, মুসলিম কিংবা অমুসলিমের ক্ষেত্রে ভর্তি ফি কম-বেশি আদায় করার কোনো সুযোগ নেই। তবে মুসলিম শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে কলেজের নিজস্ব কোনো মিলাদ মাহফিলের জন্য অতিরিক্ত ১০ টাকা আদায় করার বিধান রয়েছে। তবে এটাও ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের জানিয়ে কিংবা ব্যাখ্যা দিয়েই আদায় করতে হবে। ১০ টাকার বেশি অর্থাৎ ৫০ টাকা আদায়ের কোনো সুযোগ নেই।

বিজ্ঞাপন