পাক-ভারত সীমান্তে গোলাগুলি, নিহত পাঁচ

পাক-ভারত সীমান্তে গোলাগুলিতে একটি শিশুসহ নিহত হয়েছে অন্তত ৫জন সাধারণ নাগরিক। যুদ্ধের আশঙ্কায় ইতোমধ্যেই অন্তত তিন জেলা থেকে বাড়ি-ঘর ছেড়েছে প্রায় ৮০হাজার মানুষ এবং অন্তত ৩হাজার জনকে আশ্রয় কেন্দ্রে নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’।

জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে উভয় দেশের গোলাগুলিতে আরো অন্তত ৪০জন আহত হয়েছে যার মধ্যে ৫জন ভারতীয় সেনার অবস্থা আশঙ্কাজন বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম ‘এশিয়ান এইজ’। পাকিস্তান গ্রামগুলোকে লক্ষ্য করে ভারি গোলা বর্ষণ করলে বহু সংখ্যক প্রাণী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ও আশপাশের গ্রামগুলো থেকে জনসাধারণকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলেও এশিয়ান এইজ নিশ্চিত করেছে।

পাক-ভারত সীমান্তে সংঘর্ষ প্রায় নিয়মিত ঘটনা। দেশ ভাগের সময় বেশ কিছু অঞ্চল  ঠিকভাবে বিভক্ত হয়নি, পরবর্তীতে ভারত কাশ্মীরসহ অনেক মুসলিম অধ্যুষিত অঞ্চল দখল করে নেয়, এভাবে সীমান্তকে অস্বাভাবিক বানিয়ে দেওয়া হয়। তবে পর্যবেক্ষকদের দাবী, পাক-ভারত সংঘর্ষের মূল ভিত্তি সাংস্কৃতিক বিরোধ। এ অঞ্চলে মুসলিম  ও হিন্দু সংস্কৃতির মধ্যে যে স্নায়ু যুদ্ধ বিরাজ করছে বহুদিন ধরে, এই সংঘর্ষ এরই ধারাবাহিকতা।

বিজ্ঞাপন
আগের সংবাদমুতাজিলাদের সম্পর্কে ধারণা ও বাস্তবতা
পরবর্তি সংবাদবাগদাদে আত্মঘাতী হামলা, চারজনের মৃত্যু