রোহিঙ্গা মুহাজির শাইখুল হাদিস মুফতি ইরশাদ কাসেমির জানাজায় হাজারো মানুষ

ফাতেহ ডেস্ক:

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অবস্থান করা মিয়ানমার থেকে হিজরত করে আসা আলেমে দীন শাইখুল হাদিস মুফতি ইরশাদ কাসেমির জানাজা সম্পন্ন হয়েছে।

আজ (১৯ জানুয়ারি) রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হাজার হাজার মানুষ প্রবীণ এ আলেমের জানাজায় অংশ নেন।

মিয়ানমারের প্রবীণ আলেম মুফতি কারি মুহাম্মাদ ইরশাদ হুসাইন কাসেমি (১১০) কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরনার্থী শিবিরে আজ মঙ্গলবার ইন্তেকাল করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। রোহিঙ্গ ক্যাম্পে থাকা একাধিক সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

মুফতি ইরশাদ হুসাইন কাসেমি ছিলেন মিয়ানমারের প্রবীণ আলেম ও কারি। এক সময় তিনি বার্মার সরকারি চ্যানেলে পবিত্র কুরআনুল কারিম তেলাওয়াত করতেন।

রোহিঙ্গাদের ওপর সামরিক জান্তার অমানবিক নির্যাতনের সময় তার নাগরিত্ব বাতিল করে তাঁর ওপর অমানবিক নির্যাতন চালানো হয়। পরে নিরূপায় হয়ে তিনি বাংলাদেশে হিজরত করতে বাধ্য হন। ১১০ বছর বয়সী এ প্রবীণ আলেম বার্মার মংগডুর অধিবাসী ছিলেন। তিনি আরাকান মুসলিমদের একজন প্রভাবশালী ধর্মীয় নেতা ছিলেন।

মুফতি ইরশাদ হুসাইন কাসেমি ভারতের ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দারুল উলুম দেওবন্দ থেকে প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশুনা সম্পন্ন করেন। পড়ালেখা শেষ করে তিনি আরাকানের মুংগডুতে জামিয়াতুল আশরাফিয়ার শাইখুল হাদিস হিসাবে কর্মজীবন শুরু করেন। এক সময় বার্মার সরকারি চ্যানেলে কুরআন তেলাওয়াতের জন্য নির্বাচিত হন এবং দেশটির বিখ্যাত কারি হিসেবে সরকারি চ্যানেলে নিয়মিত কুরআন তেলাওয়াত করতেন।

বিজ্ঞাপন